প্রতিটি বিয়ের অনুষ্ঠানে একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় হচ্ছে বর পক্ষে এবং কনে পক্ষের জন্য সঠিক খাবারের ক্যাটারিং নির্বাচন করা। এই কথা সত্যি যে প্রতিটি বিয়ের সময় বর পক্ষ এবং কনে পক্ষের পিতা-মাতাকে যথেষ্ট ব্যস্ত সময় পার করতে হয়। এর মধ্যে যদি সঠিক খাবারের ক্যাটারিং নির্বাচন না হয় তাহলে, বিয়ের অনুষ্ঠানে অতিথি আপ্যায়নের সুনামের ব্যাঘাত ঘটায়।

বিয়ের খাবারের ক্যাটারিং নির্বাচন

আপনি যখন কোন ক্যাটারিং কোম্পানিকে দায়িত্ব দিবেন তখন, বরপক্ষ অথবা কমপক্ষে নিজস্ব কোন লোক সেখানে সবসময় উপস্থিত থাকা জরুরি। যদি কেউ উপস্থিত না থাকে তাহলে, ক্যাটারিং এর সময় মুরগির মাংস চুরি খাসির মাংস চুরি, মসল্লা চুরি, ঘী চুরি ধরনের অনেক কাজ হতে পারে।

অনেক সময় বাবুর্চি অথবা ক্যাটারিং কোম্পানিগুলো অতিরিক্ত মুনাফার জন্য কম দামি মসলা,কম দামি ঘি ,কমদামি মানহীন টক দই, ইত্যাদি ব্যবহারের ফলে, খাবারের গুণগত মান অনেক খানি প্রভাব বিস্তার করে। স্বাস্থ্য সম্মত একটি বিয়ের খাওয়া আয়োজন যেকোনো অতিথির জন্য একটি কাম্য।

করোনারি মহামারীর পরে যেকোনো বাবুর্চি ও তাঁর অ্যাসিস্ট্যান্ট যেন অবশ্যই তাদের কিচেনে হ্যান্ড গ্লাভস, মাথায় টুপি ও কুকিং অ্যাপ্লন যেন অবশ্যই রান্নার সময় কিচেনে ব্যবহার করে।

বাংলাদেশের বিয়ের অনুষ্ঠানের খাবার মূলত মধ্যপ্রাচ্যের খাবার দ্বারা কিছুটা হলেও অনুপ্রাণিত, বিয়ের খাবারের সুস্বাদু হওয়ার পিছনে প্রধান কারণ গুণগতমানে মুসল্লা সময়মতো পরিমাণে পরিমিত ব্যবহার।

আব্দুল মান্নান বাবুর্চি দীর্ঘ ৩৪ বছর ধরে বিয়ের অনুষ্ঠানে ক্যাটারিং করেছে। আব্দুল মান্নান বাবুর্চি বাংলাদেশের বিভিন্ন সরকারি অনুষ্ঠানে ক্যাটারিং, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান অনুষ্ঠানে ক্যাটারিং ,বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় বিয়ের অনুষ্ঠানে উনি ক্যাটারিং করেছেন। তিনি অত্যন্ত সুনামের সাথে তার রন্ধনশৈলী জাদু দেখিয়েছেন। আব্দুল মান্নান বাবুর্চির হাতে রান্না করা খাসির কাচ্চি বিরানি খুবই সুস্বাদু. আপনি যদি আপনার ছেলে অথবা মেয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানে আব্দুল মান্নান বাবুর্চিকে ক্যাটারিং এর দায়িত্বে চান তাহলে, হুমায়রা ক্যাটারিং সাথে যোগাযোগ করুন।