বিয়ে উৎসবকে অনেকে বলেন খাওয়া-দাওয়ার উৎসব। আর বলার তো যথেষ্ট কারণও রয়েছে। কারণ বিয়ের প্রতিটি আয়োজনেরই অন্যতম একটি অংশ হচ্ছে খাওয়া-দাওয়া। এনগেজমেন্ট থেকে শুরু করে বউভাত পর্যন্ত অতিথিদের খুশি করার অন্যতম অনুষঙ্গ এই খাওয়া। অনুষ্ঠান শেষে অতিথি বিদায় নেওয়ার সময় বর অথবা কনে বিশেষ করে বর একটি কমন প্রশ্ন ছুড়ে দেন। তা হলো ‘খাওয়া ভালো ছিল তো’। এ প্রশ্নের ইতিবাচক একটি উত্তর আশা করেন সবাই। তবে শুধু আশা করলেই তো আর হবে না। ভালো খাওয়ার জন্য চাই ভালো রাঁধিয়ে। বিয়ে মানেই মজার খাবারের আয়োজন। প্রতিটি খাবারই যেন থাকে মুখরোচক। এসব খাবার তৈরিতে বাবুর্চিদের জুড়ি নেই। ঢাকার নামকরা বাবুর্চিদের নিয়ে আমাদের এবারের আয়োজন।

১. জনাব আলমগীর বাবুর্চি

জনাব আলমগীর বাবুর্চির ওস্তাদ জনাব রহমতউল্লাহ, পাকিস্তানি জুবায়ের শেখ বাবুর্চির সহকারি হিসেবে দীর্ঘ সাড়ে পাঁচ বছর পাকিস্তানের ইসলামাবাদে কাজ করেছেন। জনাব আলমগীর বাবুর্চির ওস্তাদ জনাব রহমতউল্লাহ অবশ্য জীবিত নেই তবে তার সহকারী হিসেবে দীর্ঘ ৭ বছর জনাব আলমগীর সাহেব কাজ করেছেন এবং আজকের দীর্ঘ ১৮ বছর ধরে উনি বাবুর্চি পেশায় নিয়োজিত রয়েছেন।

জনাব আলমগীর বাবুর্চি সাধারণত খুব কম কথা বলেন এবং খুবই বিনয়ী একজন মানুষ এবং তিনি রান্নার সময় রান্নার উপকরণ গুলো কি পরিমান মানসম্মত এবং সে ব্যাপারে তিনি যথেষ্ট সচেতন থাকেন। হুমায়রা ক্যাটারিংয়ের সাথে তিনি দীর্ঘ ২ বছর ৪ মাস যাবত যুক্ত আছেন।

alamgir baburchi
Image Source: www.humayra.com.bd

রান্না : সাধারণ বিয়ের সব খাবারই জনাব আলমগীর বাবুর্চি করে থাকেন। স্পেশাল আইটেমের মধ্যে পাবেন আস্ত খাসির বারবিকিউ, খাসি/গরুর চাপ, আস্ত রোস্ট, শাসলিক কাবাব, শাহি টুকরা, ক্যাপসি সালাদ, মেয়নেজ সালাদ, রায়তা সালাদ, হাঁড়ি কাবাব, গ্গ্ন্যাসি খাসি/গরু/মুরগি, চিংড়ি, লবস্টার / মালাইকারি / পোক্তাকারি।

সম্মানী: সম্মানী নেওয়া হয় খাবারের চাহিদা বুঝে। মাথাপিছু ৫০-৭০ টাকা ধরা হয়। চুক্তি হলে ৭৫ শতাংশ টাকা অগ্রিম দিতে হয়।

২. জনাব আক্তার বাবুর্চি

জনাব আক্তার বাবুর্চির বাবা ময়মনসিংহ জেলার একজন নামকরা স্বনামধন্য বাবুর্চি ছিলেন। জনাব আক্তার বাবুর্চি ১৯৭৮ সালে ময়মনসিংহ জেলায় জন্ম গ্রহন করেন। মূলত তার পিতার হাত ধরেই, তার রান্নার হাতে খড়ি।অত্র এলাকায়, জনাব আক্তার বাবুর্চির খাসির কাচ্চি, খাসির রেজালা, মুরগির রোস্ট, গরুর ঝাল মাংস এবং মোরগ পোলাও রান্নার যথেষ্ট পরিমাণে সুনাম রয়েছে।

২০০৪ সালে তিনি ঢাকায় চলে আসেন। জনাব আক্তার বাবুর্চি আজকে প্রায় দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে বিয়ে-শাদীর অনুষ্ঠানে মুখরোচক খাবার উপহার দিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, “চিটাগাংয়ে রান্নার স্বাদ একরকম, পুরান ঢাকার একরকম, আমাদের ময়মনসিং জেলার রান্নার স্বাদ আরেক রকম, সবকিছুর মূলেই রয়েছে মসল্লার কারসাজি। খাবার সিদ্ধ হওয়ার সময়, সঠিক সময়ে সঠিক পরিমাণ মসল্লার ব্যবহার, খাওয়ার মান ও স্বাদ নির্ধারণ করে দেয়।”হুমায়রা ক্যাটারিংয়ের সাথে তিনি দীর্ঘ ২ বছর যাবত যুক্ত আছেন।

akter baburci
mage Source: www.humayra.com.bd

রান্না: বাংলা সব খাবারই রান্না করে থাকেন জনাব আক্তার বাবুর্চি। তবে তা নির্ভর করে কাস্টমারের চাহিদার ওপর। তার স্পেশাল খাবারের মধ্যে আছে কাচ্চি, মোরগ পোলাও, পাক্কি বিরিয়ানি, হুরিন্দা পোলাও, সবজি পোলাও, পায়েস, ফিরনি ও মুঠুরি।

সম্মানী: সম্মানী নেওয়া প্লেটপ্রতি সম্মানী ধরা হয় ৩০-৫০ টাকা। তবে এ সম্মানী নির্ভর করে খাবারের পরিমাণের ওপর। ঢাকার বাইরে হলে তা একটু বেশি হয়।

৩.  জনাব মুহাম্মদ হানিফ বাবুর্চি

পোলাও, মুরগির রোস্ট, কালো ভুনা, খাসির রেজালা, মুরগির ঝাল ফ্রাই এসকল রান্নাবান্নায় জনাব হানিফ বাবুর্চি যথেষ্ট পরিমাণে বিশেষজ্ঞ এবং স্বনামধন্য। তার যথেষ্ট পরিমাণে সুনাম রয়েছে খিলগাঁও, রামপুরা, বনশ্রী ,বাড্ডা, উত্তর বাড্ডা এসকল কমউনিটি সেন্টারগুলোতে।

দীর্ঘ ২০ বছর ধরে হানিফ বাবুর্চি প্রায় ৫ হাজারের উপরে অনুষ্ঠানে রান্না করার অভিজ্ঞতা রয়েছে। হানিফ বাবুর্চি সম্বন্ধে একটা কথা না বললেই নয়, তিনি একবার এক অনুষ্ঠানে প্রায় ৩ হাজার লোকের রান্নার আয়োজন করেছিলেন।

তিনি বলেন,” আমার জীবনের সবচেয়ে বড় একটি চ্যালেঞ্জ ছিল, এক অনুষ্ঠানে তিন হাজার লোকের রান্নার আয়োজন করা এবং রান্নার স্বাদ ও মান ধরে রাখা। এটা আমার জীবনের অন্যতম বড় একটি অর্জন” । হুমায়রা ক্যাটারিংয়ের সাথে তিনি দীর্ঘ ২ বছর যাবত যুক্ত আছেন।

হানিফ বাবুর্চি
Image Source: www.humayra.com.bd

রান্না : তিন দেশীয় খাবারের মধ্যেই রয়েছে তার রান্নার চমক। পোলাও, বিরিয়ানি, রোস্ট, রেজালা, কাবাব, বিভিন্ন ধরনের সালাদ, মিষ্টি জাতীয় খাবার ইত্যাদি তিনি রান্না করে থাকেন।

সম্মানী: মূলত খাবারের ভিত্তিতে তিনি সম্মানী নিয়ে থাকেন। তিনি আলাপ-আলোচনা করে সম্মানী নির্ধারণ করে থাকেন।

৪.  জনাব আজিজুল হক বাবুর্চি

জনাব জনাব আজিজুল হক বাবুর্চির দীর্ঘ ২১ বছর ধরে বিয়ে-শাদী, জন্মদিন ও বিভিন্ন অনুষ্ঠানের জন্য মুখরোচক খাবার উপহার দিয়ে যাচ্ছেন। তার প্রতিটি খাবারে রয়েছে ভিন্ন স্বাদ। তিনি রামপুরাতে ক্যাটারিংয়ে বেশ জনপ্রিয়। বলতে গেলে নিজের ইচ্ছাতেই জনাব আজিজুল হক বাবুর্চির পেশায় আসা। মজাদার খাবার রান্নায় তার বেশ সুনাম আছে। তিনিও ছোটবেলা থেকে বাবুর্চি পেশার সঙ্গে যুক্ত।

আজিজুল হক
Image Source: www.humayra.com.bd

রান্না : ভিনদেশি খাবার রান্না না জানলেও বাংলা খাবারে তার জুড়ি নেই। এসব খাবারের মধ্যে রয়েছে সাদা পোলাও, কাচ্চি বিরিয়ানি, বুনদিয়া পোলাও, তেহারি, গ্রিল, রোস্ট, জর্দা, শাহি টুকরা, কাবাব ইত্যাদি।

সম্মানী: প্লেটপ্রতি সম্মানী ৩০-৫০ টাকা। তবে এটি সম্পূর্ণ খাবারের পরিমাণের ওপর নির্ভর করে।

৫. জনাব মো: হান্নান বাবুর্চি

মো: হান্নান বাবুর্চী সুস্বাদু খাবার রান্নায় একজন নির্ভরযোগ্য বাবুর্চি। যেকোন অনুষ্ঠানের জন্য যে কোন অর্ডার ২৪ ঘন্টায় সরবরাহ করা হয়।

তিনি কাচ্চি বিরয়ানি, মোরগপোলাও, প্লেন পোলাও, তেহারী, রেজালা. মুরগীর রোস্ট, গরুর কালিয়া, জর্দ্দা, বোরহানী, পিচ সালাদ, জালি কাবাব, চাটনী, টিকা, ফিরনী, সবজি, মাজ ইত্যাদি রান্না করার অভিজ্ঞতা প্রায় ১৮ বছর। তিনি ঢাকার মৌলভীটেকের বেশ জনপ্রিয় একজন বাবুর্চি।

মো হান্নান বাবুর্চী
Image Source: www.humayra.com.bd

রান্না: প্রায় সব ধরনের রান্নাই জানেন মো: হান্নান বাবুর্চী । কাচ্চি, মোরগ পোলাও, পাক্কি বিরিয়ানি, বিভিন্ন মাছ রান্না, মাছের দোপেঁয়াজা, মুরগির বিভিন্ন পদ, বোরহানি। এসব খাবার তৈরিতে বেশ দক্ষ তিনি।

সম্মানী: সাধারণত সম্মানী ধরা হয় প্লেটপ্রতি ৩০ টাকা। তবে কাস্টমারের চাহিদার ওপর কম-বেশি হতে পারে। ঢাকার বাইরে গেলে তা প্রায় দ্বিগুণ হয়ে থাকে।

৬. জনাব দিদার বাবুর্চি

পুরান ঢাকার বাবুর্চি জনাব দিদার বাবুর্চি হুমায়রা ক্যাটারিং এর সাথে যুক্ত আছেন অনেক সময় ধরে।আমাদের পুরান ঢাকার দিদার বাবুর্চি রান্নার স্বাদ আসলেই অন্যরকম এবং আমাদের ক্লায়েন্ট যথেষ্ট পরিমাণে তা রান্নার উপর খুশি। প্রতিনিয়ত তিনি খাবারে নিয়ে আসছেন ভিন্ন স্বাদ। তাই তার মেন্যুও অনেক পরিবর্তন হয়।

দিদার বাবুর্চি 2
Image Source: www.humayra.com.bd

রান্না: বাংলা সব খাবারেই তার দক্ষতা রয়েছে। বিয়ের খাবারের পুরো সেট তিনি দিয়ে থাকেন। যেমন একটি মেন্যু এমন হতে পারে_ কাচ্চি বিরিয়ানি, রোস্ট/গ্রিল, কাবাব, শাহি টুকরা, জর্দা/ফিরনি, বোরহানি, পিস সালাদ।

সম্মানী: সাধারণত সম্মানী ধরা হয় প্লেটপ্রতি ৩০-৫০ টাকা টাকা। তবে কাস্টমারের চাহিদার ওপর কম-বেশি হতে পারে। ঢাকার বাইরে গেলে তা প্রায় দ্বিগুণ হয়ে থাকে।

Shopping cart0
There are no products in the cart!
Continue shopping
0

Humayra

প্রিয় সম্মানিত গ্রাহক, আপনি ফরম পূরণের কিছুক্ষন পর, আমাদের একজন প্রতিনিধি আপনার সাথে যোগাযোগ করবে।

ওয়েডিং প্লানার: 01953336332, 01953311132 (WhatsApp)

Humayra Tours & Travels

প্রিয় সম্মানিত গ্রাহক, আপনি ফরম পূরণের কিছুক্ষন পর, আমাদের একজন প্রতিনিধি আপনার সাথে যোগাযোগ করবে।

যোগাযোগ: 01953336332, 01953311132 (WhatsApp)

Humayra

প্রিয় সম্মানিত গ্রাহক, আপনি ফরম পূরণের কিছুক্ষন পর, আমাদের একজন প্রতিনিধি আপনার সাথে যোগাযোগ করবে।

ওয়েডিং প্লানার: 01953336332, 01953311132 (WhatsApp)